Menu
Thumbnail

টাইম ম্যানেজমেন্ট বাই ব্রায়ান ট্রেসি

Profile Picture

Maruf Shahrier

লিপিকার
  • বুক রিভিউ
  • Jul 13, 2021
  • 36
  • 3

বইয়ের নাম : টাইম ম্যানেজমেন্ট


লেখক : ব্রায়ান ট্রেসি
অনুবাদ : মোহাম্মদ রাশেদুল হক ও ফজলে রাব্বি
বইয়ের ক্যাটাগরি : সেল্ফ হেল্প
উৎসর্গ করা হয়েছে : অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূস স্যার কে ।

বইটি আমার জন্মদিনের উপহার।যদিওবা অনুবাদের বই এর চাইতে আমার মূল বইগুলো বেশি ভালো লাগে।প্রথমে পড়তে চাই নি।বুক হান্টারের জন্য পড়তে হলো।অনুবাদ হলেও বইটি অনেক ভালো লেগেছে।ধন্যবাদ উপহারটির জন্য।

১ম প্যারা থেকে শেষ প্যারা পর্যন্ত সব প্যারা সংক্ষেপে লিখার চেষ্টা করছি যাতে বইটি সম্পর্কে মোটামুটি একটা ধারনা পাওয়া যায়।

সময় ব্যবস্থাপনা হচ্ছে একটি মনোবিজ্ঞান :
আত্মসম্মানের অপর পিঠে হলো আত্মবিশ্বাস।নিজেকে নিজে যদি বলেন আপনি পারবেন না তাহলে জীবনেও পারবেন না।আর যদি নিজের আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাজে নেমে পরেন তাহলে আপনিই পারবেন।

আপনার মূল্যবোধ নিশ্চিত করুন : 
কাজ করার পূর্বে নিজেকে প্রশ্ন করুন কেন এই কাজ করছেন? কেন ঘুম থেকে ভোরে উঠতে চান? কাজ করার কারণটি কি?
প্রশ্ন গুলোর উত্তর জেনে নিন কাজ করার পূর্বে।কাজের পূর্বে নিজের লক্ষ্য ঠিক করে নিন।যেটি আমি নিজেও করতাম না।এখন থেকে লক্ষ্য ঠিক করা ছাড়া আর কাজ করবো না।

রূপকল্প ও সংকল্পের ব্যাপারে চিন্তা :
কোথাও যাওয়ার আগে যেমন আমরা ঠিক করি কোন পথ দিয়ে যাবো? কিভাবে যাবো? ঠিক তেমনি ভাবে কোন কাজ করার পূর্বে আমাদের ঠিক করে নেয়া উচিত আমি কোন পথ দিয়ে কাজটি করতে পারি ,কিভাবে কাজ করে ভালো ফলাফল আনতে পারি।ফলাফল মাথায় রেখে কাজ করলে কাজের অর্ধেক এমনিতেই হয়ে যায়।তার সাথে পরিকল্পনা যুক্ত করে দিলে আশি শতাংশ কাজ হয়ে যায়।বাকি বিশ শতাংশ কাজ নিজেকে করতে হবে।

ভবিষ্যৎ এর নজর রাখবেন পিছন থেকে :
সারাদিন স্বপ্ন দেখেই গেলে কিন্তু পরিকল্পনার বাক্স খালি কিংবা সারাদিন পরিকল্পনা করে গেলে পরিশ্রমের বাক্স খালি এরকম হবে না।সবকিছুর ভারসাম্য রেখে এগোতে হবে।এই লিখার শেষ লাইনটি পর্যন্ত অপেক্ষা করেন।

লিখিত পরিকল্পনা :
লক্ষ্য টা এমন ভাবে লিখিত রূপ দিবেন যাতে করে পথের সকল কাঁটাও যেন স্পষ্ট হয়ে উঠে।যাতে করে আপনি বুঝতে পারেন কখন কি করতে হবে।কিভাবে সমস্যার সমাধান করতে হবে সব আগেই পরিকল্পনা করে ফেলুন।

তালিকা বদ্ধ চেক বক্স :
চেক বক্স আকারর তালিকা বানান।শেষ হবে ঠিক মার্ক দিয়ে দিবেন অথবা কেটে দিবেন পুরো লাইনটি।আয়মান ভাইয়া যেভাবে বলেছি,কেটে দেয়ার মাঝে আলাদা তৃপ্তি রয়েছে যেটি আসলে বলে বোঝানো যায় না।

প্রতিদিনকার অনুসূচি :
আজকে কি করবেন? কোন কাজটিি বেশি গুরুত্বপূর্ণ, কোনটি কম গুরুত্ব পূর্ণ সব গুলো পর্যায়ক্রমিক ভাবে লিখে ফেলুন।এর পর কাজ শেষ কেটে দিন।
কি কি করবেন না সেটিরও তালিকা বানান।
সময় অপচয় কমে যাবে।কথা দিলাম

মূল্য দক্ষতায় কাজ করুন বাকি কাজ ভাগ করে দিন :
এমন কিছু কাজ আছে যেই কাজ গুলো আপনি ছাড়া আর কেউ পরে না ভালোভাবে করতে আবার এমন কিছু কাজ আছে যেই কাজে আপনি পারদর্শী না।তাই যেই কাজে আপনার দক্ষতা আছে তা নিজে করুন বাকি কাজ ভাগ করে দিন বিশেষ করে যখন আপনি কোনো দলের সাথে কাজ করছেন।

একটি বিষয় চিন্তা করবেন একসাথে সব না :
যেকোনো একটি বিষয় চিন্তা করবেন।এতে করে আপনার পুরো চিন্তা এক বিষয়কে কেন্দ্র করে থাকবে।তখন ঐ বিষয়ে আরো সৃজনশীল চিন্তা আসবে।দরকার হলে আলাদা আলাদা সময় নিবেন এক একটি বিষয় চিন্তা করার জন্য।

গড়িমসি করার অভ্যাস :
এই অভ্যাস টা অবশ্য অবশ্যই বাদ দিতে হবে।কালকের জন্য ফেলে রাখবেন না কাজ।যা আজকে করছে তা আজকেই শেষ করবেন।এতে করে কাল নতুন কাজ শুরু করার অনুপ্রেরণা পাবেন।কোন কাজ একসাথে না পারলে ভাগ করে নিবেন।আজকে কাজের এই অংশ কালকে কাজের ঐ অংশ।এভাবে পুরো কাজটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত ঐকাজটি করবেন শুধু যতক্ষণ পর্যন্ত কাজটে শেষ হচ্ছে ততক্ষণ।

বিরোক্তি করবেন না :
কাজ করার সময় কাজ করবেন এমন কি কেউ দেখা করতে আসলেও বলবেন আপনি এখন সময় দিতে পারছেন না।বিনয় এর সাথে বুঝাবে আপনি যেই কাজটি করছেন সেই কাজটি গুরুত্বপূর্ণ।আপনি পরে একসময় তার সাথে কথা বলবেন।

একই ধরনের কাজ একসাথে করুন।

মোবাইল থেকে দূ্রে থাকুন যতোক্ষণ পর্যন্ত কাজ শেষ হচ্ছে।

মিটিং এর নামে সময় অপচয় :
মিটিং করার পূর্বে মিটিং এ কি কি হবে কি কি বলবেন সব গুছিয়ে নিন।অন্য সময় যতোটুকু কম নিতে পারেন সেই দিকে লক্ষ্য রাখুন।কারণ সবার ই সময় এর মূল্য আছে।চেষ্টা করুন দাড়িয়ে মিটিং করার এতে করে মিটিং তাড়াতাড়ি শেষ হবে।ফলাফল ভালো হবে।

তথ্য গ্রহণ :
যেই তথ্য আপনার দরকার শুধু সেই তথ্য নিবেন বাকি তথ্য মুছে ফেলুন।

ব্যক্তিগত উন্নয়ন : 
এই টপিক এর মানে এই না যে আপনি শুধু নিজেই নিজের পিছনে লেগে থাকবেন।আপনার চারপাশটা নিয়ে একটু বাঁচতে শিখুন।সবার সাহায্য করার মানসিকতা রাখুন।নিজের অযথা সময় অপচয় বাদ দিন।নতুন কিছু করার চেষ্টা করুন।বা নতুন কিছু করছে এমন কারো সাথে যোগ দিন।

সংক্ষিপ্ত আকারে :
সময় আপনার আপনি কিভাবে এটিকে ব্যবহার করবেন এটা পুরোটায় আপনার উপর।

কিছু কিছু অংশকে নিজের লিখা দিয়ে জিনিসটিকে সহজ করার চেষ্টা করেছি।

 

Happy Reading! 

রিপোর্ট

সাম্প্রতিক মন্তব্য

কোনও মন্তব্য নেই!

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য করার জন্য লগইন করুন!